পুষ্টি সঠিকভাবে না পেলে ওষুধ আর হাসপাতাল দিয়ে কাজ হবে না

প্রকাশিত: ১২:১০ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২০ | আপডেট: ১২:১০:অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ।প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসসহ যে কোনও রোগ থেকে রক্ষায় শুধু হাসপাতাল এবং ওষুধ দিয়ে সুরক্ষা সম্ভব নয় বলে মনে করছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, স্বাস্থ্য সুরক্ষায় হাসপাতাল আর ওষুধ নয়, আমাদের প্রয়োজন ভেজালমুক্ত খাদ্য। এটিই পারে আমাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে। নিউট্রিশন যদি আমরা সঠিকভাবে না পাই তবে তো ওষুধ আর হাসপাতাল দিয়ে কাজ হবে না।

বৃহস্পতিবার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) আওতাধীন বঙ্গবাজারে অবস্থিত আধুনিক খাদ্য পরীক্ষাগারের উদ্বোধন শেষে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে আমরা করোনাভাইরাসের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছি। কিন্তু এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা যদি শুধু ওষুধ কিনি আর হাসপাতালের যন্ত্রপাতি কিনি তাহলে তো স্বাস্থ্য সুরক্ষিত হবে না। কারণ আমাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় প্রয়োজন প্রপার নিউট্রিশন। এ নিউট্রিশন যদি আমরা সঠিকভাবে না পাই তবে তো ওষুধ আর হাসপাতাল দিয়ে কাজ হবে না। তাই আমাদের ভেজালমুক্ত খাবার নিশ্চিত করতে হবে। আজ আধুনিক খাদ্য পরীক্ষাগার উদ্বোধন করলাম। আশা করছি এটির সুফল আমরা সবাই পাবো। বিশেষ করে ঢাকাবাসী। তবে পর্যায়ক্রমে সারাদেশের জন্য আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে।

এ সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব হলো জনস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা। ঢাকাবাসী যেন স্বাস্থ্যকর খাদ্যগুলো পায় সেটা নিশ্চিত করার জন্য ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে আধুনিক যন্ত্রপাতিসহ দক্ষ জনবল নিয়ে একটি আধুনিক খাদ্য পরীক্ষাগার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আজ ডিএসসিসিতে এমনি একটি আধুনিক খাদ্য পরীক্ষাগার উদ্বোধন হলো। এর মাধ্যমে ঢাকা দক্ষিণে যত খাদ্য পণ্য বিক্রি হবে সেসব খাদ্য সামগ্রীর মান আমরা নিশ্চিত করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমাদের আগে থেকেই এ দায়িত্ব দেওয়া ছিল, খাদ্য-পণ্যগুলোর মান নির্ণয় করা। কিন্তু এতোদিন আমাদের সেই স্বয়ংসপূর্ণতা ছিল না। আজ এ আধুনিক ল্যাবরেটরির মাধ্যমে আমরা সে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করলাম। এখন থেকে যেকোনও খাদ্য-পণ্যের সঠিক মান নির্ণয়ের মাধ্যমে আমরা ব্যবস্থা নিতে পারবো। এতো দিন আমরা ভেজালের বিরুদ্ধে অভিযান করলেও ভেজালকারীরা উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে যে আমরা সঠিকভাবে পরীক্ষা না করেই তাদের জরিমানা করেছি। এখন থেকে সে সুযোগ থাকবে না।