বৃহষ্পতিবার থেকে চার সপ্তাহের জন্য ইংল্যান্ডে লক ডাউন ঘোষণা-স্কুল বিশ্ববিদ্যালয় টেকওয়ে ডেলিভারি থাকছে লকডাউনের বাইরে

প্রকাশিত: ৮:৪৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০২০ | আপডেট: ১:১৯:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ। শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে বিজ্ঞানীদের সাথে একমত হতেই হলো। নিজের আগের অবস্থান থেকে সরে এসে আজ সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া প্রেস কনফারেন্সী মাধ্যমে আগামী বৃহষ্পতিবার থেকে ২রা ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত সমগ্র ইংল্যান্ডে লক ডাউন ঘোষণা করেছেন। ঘোষণায় অতি জরুরী প্রয়োজনীয় ছাড়া সব ধরনের নন-এসেনসিয়াল শপ, রেস্তোরা, পাব বন্ধ থাকবে। তবে টেকওয়ে ডেলিভারি সার্ভিস খোলা থাকবে। ক্লিক এন্ড সার্ভিস খোলা থাকছে। থাকছে সুপার মার্কেটগুলো-যাতে আর স্টকপাইল বা মওজুদ করার প্রয়োজন না পরে।

লকডাউনের আওতায় স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় খোলা থাকবে।

২রা ডিসেম্বরের পর ব্রিটেন ফের টিয়ার সিস্টেমে ফিরে যাবে বলেও জানান।

তিনি বলেন, এবারের ক্রিসমাস ব্যতিক্রম। সম্ভবত খুবই ব্যতিক্রম।

এ সময় তিনি বলেন ব্যবসায়ীদের কাছে ট্রুলি ট্রুলি সরি এবং সেজন্য ফারলাও স্কিম ডিসেম্বর পর্যন্ত বৃদ্ধির ঘোষণা দেন।

জনসন বলেন, সোমবারের তিনি পার্লামেন্টে বিবৃতি দেবেন, বুধবারে বিল আসবে, বৃহষ্পতিবার থেকে লকডাউন চার সপ্তাহের জন্য।

গত মার্চের মতো পূর্ণাঙ্গ লকডাউন না হলেও তিনি বলেন ম্যাসেজ একটাই স্টে এট হোম।

উল্লেখ্য শনিবার পর্যন্ত ইউকেতে ২১, ৯১৫ করোনা ভাইরাসের কেস কনফার্ম করা হয়েছে।  আমেরিকা, ভারত, ব্রাজিল, রাশিয়া, ফ্রান্স, স্পেন, আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়ার পরই ইংল্যান্ডের স্থান করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে।

প্রেস কনফারেন্সের আগে স্কুল ও ইউনিভার্সিটি ইউনিয়ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ করে অনলাইন শিক্ষা পদ্ধতি চালুর আহবান করেছিলেন।

এর আগে শনিবার বরিস জনসন দলীয় এমপিদের সাথে বৈঠক করেন। এসময় তীব্র বাক বিতন্ডা হয় লকডাউন নিয়ে। দলীয় এমপিরা লকডাউনের বিরোধীতা করেন। ব্রিটিশ চেম্বার অব কমার্সও মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে। সেইজের ও প্রফেসর ফার্গুসন মডেলের সাথে ইংল্যান্ডের বেশ কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইন্টিস্টরা দ্বিমত পোষণ করে বলেছেন লকডাউনই সমাধান নয়।

https://londontimesnews.com/archives/12327