‘দেশে বিএনপির প্রয়োজন নেই’

প্রকাশিত: ৭:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৮, ২০২০ | আপডেট: ৭:৪৩:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৮, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ, ঢাকা।বিএনপি সব সময় পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায়৷ এ জন্য যা করার তার সবই তারা করেছে। দুঃখ লাগে বাংলাদেশের মানুষ এখনও বিএনপিকে ভোট দেয়৷ বাংলাদেশের মানুষকে বুঝতে হবে, এই ধরনের রাজনৈতিক দলের প্রয়োজন নেই৷ সব সময় তারা দেশকে পেছনের দিকে টেনে নিয়েছে। ২০০১-০৬ পর্যন্ত তারা দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ৭০তম জন্মদিন উপলক্ষে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী কর্নেল (অব.) ফারুক খান এসব কথা বলেন৷

আহসান উল্লাহ মাস্টারের ছেলে এবং যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন৷

ফারুক খান বলেন, কিছু কিছু জেলায় দলের মধ্যে অন্তঃকোন্দল রয়েছে। এর বড় কারণ অনুপ্রেবশকারীরা। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মতো বড় রাজনৈতিক দলে অন্যরা প্রবেশের চেষ্টা করবেই। প্রথম কারণ হচ্ছে সৎ কাজ। যখন অনেকে দেখে তারা রাজনৈতিক দল মানুষের কল্যাণে কাজ করছে না, উল্টো পথে চলছে, তখন মানুষের সেবা করতে অনেকে আওয়ামী লীগে যোগ দিচ্ছে। আরেকটা দল আছে, তারা আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে ফায়দা লুটতে চায়। এবং অন্যরা দলে প্রবেশ করে দলের মধ্যে কোন্দল সৃষ্টি করতে চায়। দ্বিতীয় ও তৃতীয় গ্রুপ থেকে সাবধান থাকতে হবে।

তিনি আরও বলেন, গত প্রেসিডিয়াম সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দল মিটিয়ে ফেলতে জ্যেষ্ঠ নেতাদের নিয়ে ৮ বিভাগের জন্য ৮টি টিম করে দিয়েছেন। কিছু দিনের মধ্যে টিমের সবাই অন্যদের নিয়ে আলোচনায় বসে যেখানে যেখানে অভিযোগ আছে- তা বিবেচনায় নিয়ে দলের সবার সঙ্গে আলোচনা করে মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করব।