পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সহায়তায় ১ বছর আটকে থাকা পাসপোর্ট হাতে পেল স্পেন প্রবাসীরা!

প্রকাশিত: ৭:৫৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০২০ | আপডেট: ৭:৫৪:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০২০

এলটিএন ডিজিটাল।পাসপোর্ট নিয়ে স্পেন প্রবাসীদের সকল অভিযোগের অবসান। প্রায় বছর খানিক আটকে থাকা পাসপোর্ট হাতে পেল স্পেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। গতকাল বুধবার এই পাসপোর্টগুলো বাংলাদেশ থেকে স্পেনের মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে পৌঁছায়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনের সরাসরি হস্তক্ষেপ, পাসপোর্ট অধিদপ্তরের নতুন ডিজি মেজর জেনারেল আইয়ূব আলীর সার্বিক তদারকি, বাংলাদেশ দূতাবাস মাদ্রিদ স্পেনের রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকারের নিরলস প্রচেষ্টায় এই পাসপোর্টগুলো প্রবাসীদের কাছে প্রেরণের জন্য প্রস্তুত বাংলাদেশ দূতাবাসে।

বাংলাদেশি পাসপোর্ট না পাওয়ায় অনেকের স্প্যানিশ রেসিডেন্ট কার্ড রিনিউ করতে পারছিলেন না। এতে করে অনেকের অবৈধ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। ভুক্তভোগীরা গত বছর প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের কাছে সরাসরি বিষয়টি সমাধানের অনুরোধ করলে তারা বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দেন। কিন্তু বছর পেরিয়ে গেলেও পাসপোর্টগুলো আটকে ছিল।

বাংলাদেশ দূতাবাস স্পেনের রাষ্ট্রদূত বর্ণিত বিষয়ে পাসপোর্ট অধিদপ্তর বরাবর একাধিক চিঠি দিয়ে কোন অগ্রগতি না হওয়ায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানান। পরে বহির্গমন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে বিষয়টি অবহিত করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর একান্ত সচিব ড. দেওয়ান মো. শাহরিয়ার ফিরোজ।

পাসপোর্টগুলো বাংলাদেশ থেকে স্পেনের মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে পাঠানোর খবর শুনে প্রবাসীরা আনন্দে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।