রোহিঙ্গাদের সহায়তা দিতে যুক্তরাষ্ট্র-সৌদি আরব চুক্তি স্বাক্ষরিত

প্রকাশিত: ৮:২৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০২০ | আপডেট: ৮:২৪:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ।কক্সবাজারে জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় পুনর্বাসন ও দুর্যোগের ঝুঁকি হ্রাস প্রকল্পে সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্র ও সৌদি আরব।

রোহিঙ্গা শিবিরে বহুমুখী সহায়তা দিতে দ্বিপাক্ষিক এ চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার ভার্চুয়াল মাধ্যমে চুক্তি স্বাক্ষর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়, যার আওতায় রোহিঙ্গাদের জন্য বাসস্থান নির্মাণে ২০ লাখ ডলার সহায়তা দেবে দেশদুটি। উভয় দেশ প্রত্যেকে ১০ লাখ ডলার করে অনুদান দেবে।

ইউএসএইডের উপ-প্রশাসক জন বার্সা এবং সৌদি বাদশা সালমানের মানবিক সহায়তা ও ত্রাণ কেন্দ্রের (কেএস রিলিফ) পরিচালক ডা. আব্দুল্লাহ আল-রাবিয়াহ চুক্তিতে নিজ নিজ দেশের পক্ষে স্বাক্ষর করেন। খবর আরব নিউজের।

উখিয়া, টেকনাফ, কুতুবদিয়া এবং মহেশখালীতে জরুরি সহায়তা দরকার এমন ৮৭,১৬৫ জন রোহিঙ্গাকে চিহ্নিত করে সাহায্য করা হবে। এদের অনেকেই বাসস্থান হারিয়েছেন সাম্প্রতিক সময়ের বেশকিছু প্রাকৃতিক দুর্যোগে। তাছাড়া, অনেকে স্থানীয়দের সঙ্গে বিবাদেও জড়িয়েছেন। সামাজিক আবাসন প্রকল্পের মাধ্যমে তাদেরকে এসব বিপদ থেকে সুরক্ষা দেওয়ার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে।

চুক্তিটির প্রশংসা করেছেন সৌদি কর্মকর্তা ডা. আল-রাবিয়াহ। তিনি বলেন, সৌদি আরব সব সময় রোহিঙ্গাদের পাশে ছিল। সেটা সৌদি ভূখণ্ড হোক বা বাংলাদেশ, সৌদি আরব সবখানেই তাদের পাশে আছে। আমরা সব সময় তাদের প্রয়োজনীয় সকল ধরনের সেবা ও অবকাঠামো সুবিধা দিয়েছি।

জন বার্সা বাংলাদেশ এবং অন্যান্য দেশকে সহায়তা দেওয়ায় ডব্লিউএফপি এবং কেএস রিলিফকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এসময় তিনি বলেন, ”আজ তিন বছরের বেশি সময় ধরে রোহিঙ্গা শরণার্থীরা দুর্ভোগের শিকার। এই চুক্তি তাদের অতি-দরকারি সহায়তা দেওয়ার পথ প্রশস্ত করবে।”