সাওদিআরবের নিয়ম সিটিতে যুবরাজের সঙ্গে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর গোপন বৈঠক

প্রকাশিত: ২:০৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২০ | আপডেট: ২:১০:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২০

এলটিএন ডিজিটাল।গোপনে সৌদি আরব সফর করে দেশটির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

এ সময় দেশটিতে সফররত মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গেও বৈঠক করেন তিনি।

রোববার ইসরাইলের বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ খবর প্রকাশ করেছে বলে বিবিসি জানিয়েছে। ওই বৈঠকে ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের প্রধান ছিলেন বলেও জানা গেছে।

ওয়াশিংটন পোস্ট বলছে, এ খবর সত্য হলে এটি হবে ঐতিহাসিকভাবে বৈরি দেশদুটির মধ্যে প্রথম কোনো বৈঠক যার খবর প্রকাশ্যে এলো। একই সঙ্গে প্রথম কোনো ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর সৌদি আরব সফরও এটি।

ইসরাইলের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম হারেৎজ জানিয়েছে, এভিয়েশন ট্র্যাকিং ডাটায় দেখা গেছে, একটি ব্যক্তিগত জেট বিমান নিয়ে তেল আবিব থেকে সৌদি আরবের নিওম শহরে পৌঁছান নেতানিয়াহু।

রোববার সেখানেই যুবরাজ এবং মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে তার সাক্ষাতের কর্মসূচি নির্ধারিত ছিল।

বিমান চলাচলের তালিকায় দেখা যাচ্ছে, ইসরাইল থেকে একটি বিমান সরাসরি সৌদি মেগা-সিটি নিওমে গিয়েছে। পাঁচ ঘণ্টা পরে সেটা আবার ফেরত এসেছে।

ইসরাইলি সরকারের সোর্সের উদ্বৃতি দিয়ে হারেৎজ বলছে, এই সফরের ব্যাপারে ইসরাইলের বিকল্প প্রধানমন্ত্রী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীও অন্ধকারে ছিলেন।

যদিও এক টুইট বার্তায় ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর একজন উপদেষ্টা এই বৈঠক হয়েছে বলে আভাস দিয়েছেন। তবে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো পক্ষই এ ব্যাপারে কিছু জানায়নি।

এএফপি বলছে, ইসরায়েলের কোনো প্রধানমন্ত্রীর এমন সফর এর আগে হয়নি। ইসরায়েলের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম কেন–এর কূটনৈতিক প্রতিবেদক এক ইসরায়েলি কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বলেন, গোপন এই সফরে নেতানিয়াহুর সঙ্গে ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের প্রধান ইয়োশি কোহেনও ছিলেন।

নিওম সিটিতে গতকাল রোববার সৌদি যুবরাজের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাইক পম্পেও

স্থানীয় সময় আজ সোমবার কেন–এর ওই প্রতিবেদক বলেন, তাঁরা (নেতানিয়াহু ও কোহেন) গতকাল সৌদি আরবের নিওম সিটির উদ্দেশে রওনা হন। সেখানে তাঁরা পম্পেও ও মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেন।

ট্রাম্প প্রশাসনের মধ্যস্থতায় সৌদি আরবের উপসাগরীয় অঞ্চলের মিত্র হিসেবে পরিচিত সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) ও বাহরাইনের সঙ্গে স্বাভাবিক কূটনৈতিক সম্পর্ক গড়ছে। এর কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই কথিত এই বৈঠকে বসে ইসরায়েল ও সৌদি আরব।

ইসরায়েলের প্রখ্যাত কূটনৈতিক সাংবাদিক বারাক রাভিদ তাঁর এক প্রতিবেদনে বলেন, নেতানিয়াহু ও কোহেন ইসরায়েলি ব্যবসায়ী উদি অ্যাঙ্গেলের মালিকানাধীন একটি প্রাইভেট বিমানে চড়ে সৌদি আরব যান। রাভিদ আরও বলেন, ফ্লাইট ট্র্যাকিংয়ের তথ্য বলছে অ্যাঙ্গেলের বিমানটি স্থানীয় সময় রোববার রাত আটটায় ইসরায়েল ছেড়ে যায়। বিমানটি নিওম সিটির উদ্দেশে যাত্রা করেছিল। পাঁচ ঘণ্টা পর বিমানটি ইসরায়েলে ফিরে আসে। তবে নেতানিয়াহুর কার্যালয় থেকে এই সফর সম্পর্কে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য দেওয়া হয়নি।

নেতানিয়াহু, মোহাম্মদ বিন সালমান ও পম্পেওয়ের বৈঠকের বিষয়ে জানতে এএফপির পক্ষ থেকে সৌদি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো জবাব মেলেনি।