লাইফ সাপোর্টে জিনাত বরকতুল্লাহ, বাইরে বিজরীর অপেক্ষা

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৭, ২০২০ | আপডেট: ৭:০৫:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৭, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ।মাস তিনেক আগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে অনেক দিন ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন বরেণ্য নৃত্যশিল্পী জিনাত বরকতুল্লাহ। সপ্তাহখানেক ধরে আবার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি। চিকিৎসাধীন আছেন হাসপাতালের নন–কোভিড ইউনিটে। একসময় অবস্থার অবনতি হলে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত জিনাত বরকতুল্লাহকে ভেন্টিলেশনে নেওয়া হয়েছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা মায়ের জন্য বাইরে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন অভিনয়শিল্পী বিজরী বরকতুল্লাহ। তাঁর অপেক্ষা, মা চোখ খুলবেন, কথা বলবেন।

রোববার দুপুরে যখন অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী বিজরীর সঙ্গে কথা হচ্ছিল, তখন তিনি হাসপাতালের নন–কোভিড ভেন্টিলেশন ইউনিটের বাইরে অপেক্ষা করছিলেন। কান্নাজড়িত কণ্ঠে বিজরী জানালেন, শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়াতে ২১ ডিসেম্বর রাতে জিনাত বরকতুল্লাহকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরদিন থেকে পরিস্থিতির অবনতি হতে থাকে। এরপর চিকিৎসক তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। পরিস্থিতি আরও অবনতি হলে গত পরশু থেকে তাঁকে ভেন্টিলেশনে নেওয়া হয়। প্রথম আলোকে বিজরী বললেন, ‘আম্মার অবস্থা ভালো না। খুবই সংকট সময় পার করছি। সবাই আম্মার জন্য দোয়া করবেন।’

মা জিনাত বরকতুল্লাহর সঙ্গে মেয়ে বিজরী বরকতুল্লাহ

মা জিনাত বরকতুল্লাহর সঙ্গে মেয়ে বিজরী বরকতুল্লাহ ।ছবি : সংগৃহীত

সাত দিন ধরে হাসপাতালই ঘরবাড়ি বিজরীর। তিনি বললেন, ‘মা অসুস্থ থাকলে এমনিতেই মন ভালো থাকে না। তার মধ্যে আম্মার অবস্থা এতটাই জটিল যে কিছুই ভালো লাগছে না। কী পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছি, বলে বোঝাতে পারব না। মায়ের এমন অবস্থা দেখে খুবই কষ্ট পাচ্ছি, তাই হাসপাতালই এখন ঘরবাড়ি হয়ে গেছে। মাকে এভাবে হাসপাতালে রেখে বাইরে কোথাও যেতে মন চায় না। কখন মায়ের কাছ থেকে ডাক পড়বে, মা চোখ মেলে তাকাবেন, বাইরে দাঁড়িয়ে সেই অপেক্ষায় আছি।’
এর আগে জিনাত বরকতুল্লাহর স্বামী ও বিজরীর বাবা টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব মোহাম্মদ বরকত উল্লাহ করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ৩ আগস্ট রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তখন জিনাত বরকতুল্লাহও করোনায় আক্রান্ত হন। তবে তিনি করোনা জয় করে সুস্থ হয়ে ওঠেন।