‘২০২১ সালে জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দেবার প্রত্যাশা’

প্রকাশিত: ৭:৩২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০ | আপডেট: ৭:৩২:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ।২০২০ শুধু বিএনপির জন্য নয় বাংলাদেশের জন্য একটা খারাপ বছর উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এই বছরে সরকারের কর্তৃত্ববাদের যে চেহেরা তা আরো প্রচন্ডভাবে বেড়িয়ে এসেছে,ডিজিটাল আইনে অনেক সাংবাদিককে গ্রেফতার করা হয়েছে,ধর্ষণ এ বছরের মধ্যে সবথেকে বেশি বেড়েছে,দুর্নীতি সবথেকে বেশি বেড়েছে সেই সাথে জনগনের অধিকার হরণ এই বছরেই সব থেকে বেশি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার(২৯ ডিসেম্বর) সকালে ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, ২০২১ সালে জনগনের অধিকার ফিরিয়ে দেবার প্রত্যাশা করে বিএনপির এই মহাসচিব বলেন, নতুন বছরের দিকে দেশের জনগনের যে অধিকার রয়েছে, সে অধিকার ফিরিয়ে পাবার জন্য আমার অবশ্যই প্রত্যাশা করবো। সেই সাথে প্রত্যাশা করবো জনগন তাদের অধিকার ফিরিয়ে পাবার জন্য ঐক্যবদ্ধ হবে।

দেশে করোনা ভাইরাস আসার পরে কয়েকটি জিনিস খুব পরিস্কার হয়েছে,তার মধ্যে একটি হচ্ছে এখানকার স্বাস্থ্যব্যবস্থা সবচেয়ে ভঙ্গুর। এখানে সরকারি যে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা রয়েছে সেটি সবটাই দুর্নীতি দিয়ে ভরা। সাধারণ মানুষের চিকিৎসা সেবা পাওয়ার যে সুযোগ এটি এখানে সবচেয়ে কম

ফখরুল আরো বলেন, সরকারের তরফ থেকে বলা হচ্ছে করোনার ভ্যাকসিন সরবরাহ করা হবে ভারত থেকে। এটা কে সংগ্রহ করবেন, একজন ব্যক্তি মালিকাধীন মানে একটি কোম্পানী যার মালিক হচ্ছেন এই সরকারের উপদেষ্টা। তারা প্রায় দেড় ডলার বেশি দিয়ে এগুলো আনবেন। সরকারের প্রতিটি ক্ষেত্রে চুরি করার যে একটা প্লান থেকে যায় ঠিক সেই ভাবে তারা এই চুড়িগুলো করছে।

এসময় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফয়সল আমিন সহ জেলা ও উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।