বাতাসে করোনা ছড়ানোর প্রমাণ বেরিয়ে আসছে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

প্রকাশিত: ৯:৪১ অপরাহ্ণ, জুলাই ৭, ২০২০ | আপডেট: ৯:৪১:অপরাহ্ণ, জুলাই ৭, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ।করোনা ইস্যুতে আবারো নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। জাতিসংঘের সংস্থাটি মঙ্গলবার স্বীকার করে নিয়েছে যে বাতাসের মাধ্যমেও প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস ছড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

সম্প্রতি মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমসের একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বের ৩২ দেশের ২৩৯ বিজ্ঞানী গবেষণা করে দেখেছেন, বাতাসে করোনার বেঁচে থাকার ক্ষমতা রয়েছে। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এর আগে দাবি করেছিল যে শুধু মাত্র হাঁচি, কাশি কিংবা কথা বলার সময়ে বের হওয়া লালারসের ফোঁটার মাধ্যমে করোনা মানুষের থেকে মানুষের শরীরে সংক্রমণ ছডায়।

জেনেভায় সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মারিয়া ভ্যান কেরখোভ বলেন, আমরা কথা বলছি বাতাসে করোনা ছড়ানোর সম্ভাবনা নিয়ে। বাতাসের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস ছড়ানোর সম্ভাবনা বিশেষ করে সুনির্দিষ্টভাবে জনবহুল, বদ্ধ জায়গায় যেভাবে ছড়ানোর কথা বলা হচ্ছে সেটি অস্বীকার করা যায় না। তবুও এই ধরণের প্রমাণ আরো সংগ্রহ এবং ব্যখ্যা করা উচিৎ। আমরা এতে সমর্থন দিয়ে যাবো।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশিকা অনুযায়ী, ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রাখলেই করোনা থেকে নিরাপদ থাকা সম্ভব । বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকারও করোনা প্রতিরোধে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই নির্দেশিকা মেনে চলছিল। তবে এবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে করোনার সংক্রমণ নিয়ে তারা শিগগিরই একটি নতুন নির্দেশিকা বের করবে।