বাংলাদেশের অগ্রগতি হয়েছে বলেই বিশ্ব স্বীকৃতি দিয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১:৪৯ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২০ | আপডেট: ১:৪৯:অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ, ডিজিটাল।মানবপাচার, শিশু পাচার, নারী পাচার রোধে বাংলাদেশের অনেক অগ্রগতি হয়েছে বলেই বিশ্ব তার স্বীকৃতি দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

শুক্রবার এক ভিডিও বার্তায় যুক্তরাষ্ট্র সরকারের করা মানবপাচারের বিরুদ্ধে লড়াইকারী দেশগুলোর একটি তালিকায় বাংলাদেশ টায়ার-২-এ উন্নীত হওয়ার বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এর আগে, বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মানবপাচার বিষয়ক এক প্রতিবেদনে বাংলাদেশকে ওয়াচ লিস্ট থেকে টায়ার-২-এ উন্নীত করার কথা বলা হয়।

বাংলাদেশ থেকে মানবপাচার এবং শিশু পাচার পুরোপুরি বন্ধ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, আমরা এ দেশ থেকে মানবপাচার, শিশু পাচার, নারী পাচার এগুলো বন্ধ করতে চাই। সবার সহায়তা ছাড়া আমরা এটি করতে পারব না।

অবৈধভাবে যারা বিদেশে গিয়ে নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন তার দায় তাদের পরিবার, আত্মীয়-স্বজন বা প্রতিবেশীরাও এড়াতে পারেন না মন্তব্য করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বুঝে শুনে আপনারা নিজেদের সন্তানদের অবৈধভাবে বিদেশ পাঠাবেন না। আর অবৈধভাবে কেউ বিদেশ পাঠানোর কথা বললে পুলিশ বা স্থানীয় প্রশাসনকে তা অবগত করুন।

এ বিষয়ে সরকারকে সহায়তা করার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, অবৈধ মানবপাচার রোধে আপনাদের সবার সহায়তা প্রয়োজন। এ বিষয়ে দেশবাসীকে শক্তিশালী জনমত গঠন করতে হবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মার্কিন এ স্বীকৃতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবপাচারকারীদের বিরুদ্ধে জিরো টালারন্স নীতিকে আরও সুসংহত করবে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, আইন ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে মানবপাচারের বিরুদ্ধে ২০১৮-২০২০ যৌথ অ্যাকশন প্ল্যান এক্ষেত্রে তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।