যুদ্ধাপরাধী মঈনুদ্দিন হোম সেক্রেটারি প্রীতি প্যাটেলের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন

প্রকাশিত: ২:০৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০২০ | আপডেট: ২:০৪:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০২০

ডেইলি মেইল সংবাদ।একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ব্রিটিশ-বাংলাদেশি চৌধুরী মঈন উদ্দিন হোম সেক্রেটারি প্রীতি প্যাটেলের বিরুদ্ধে ৬০ হাজার পাউন্ড ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা করেছেন । অনলাইন সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এর প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

হোম অফিসের  একটি রিপোর্টে মানহানি করায় চৌধুরী মঈন উদ্দিন মামলাটি করেছেন বলে জানা গেছে। মামলায় বলা হচ্ছে, কমিশন ফর কাউন্টারিং এক্সট্রিমিজমের ‘চ্যালেঞ্জিং হেটফুল এক্সট্রিমিজম’ নামের একটি ডকুমেন্ট গত বছর ব্রিটিশ হোম অফিসের টুইটার অ্যাকাউন্টে শেয়ার করা হয়েছে। এই অ্যাকাউন্টের অনুসারী প্রায় ১০ লাখ। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের পর দেশ ছাড়েন মঈন উদ্দিন এবং ব্রিটেনে এসে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব পান। এই টুইটে রিটুইট করেছিলেন হোম সেক্রেটারি প্রীতি প্যাটেল, বিবিসির সাংবাদিক মিশাল হুসেইন, মানবাধিকার বিষয়ক ক্যাম্পেইনার পিটার ট্যাটচেল।

উত্তর লন্ডনে বাস করা চার সন্তানের জনক মঈন দাবি করেছেন যে তিনি কোনো যুদ্ধাপরাধের সঙ্গে জড়িত নন।সাত বছর আগে বাংলাদেশে চৌধুরী মঈন উদ্দিনকে মানবতা বিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত করা হয়। অভিযোগে বলা হয়, স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ১৮ বুদ্ধিজীবী হত্যায় তিনি একটি মিলিশিয়ার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন । এ অপরাধে তার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত ফাঁসি ঘোষণা করে। তখন বিচারকার্যে অনুপস্থিত ছিলেন চৌধুরী মঈন উদ্দিন ।