ফেসবুকের স্ট্যাটাস নিয়ে ‘তুলকালাম’!আহত ৩০, ভাঙচুর

প্রকাশিত: ১:৩৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০২০ | আপডেট: ১:৩৩:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০২০

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ)।নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে এক নারীকে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে ১২টি বাড়ি ও একটি মুদি দোকান। আজ রবিবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার খাগকান্দা ইউনিয়নের কাকাইলমোড়া এলাকায় এ সংঘর্ষের ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

দুই দিন আগে স্থানীয় রাজন নামে এক যুবক এক নারীর বিরুদ্ধে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। এ নিয়ে ওই নারীর পক্ষ হতে প্রতিবাদ করলে এ নারীর ছোট ছেলেকে স্থানীয় লোকমান মেম্বারের লোকজন রাস্তায় মারপিট করে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

এক পক্ষের নেতৃত্ব দেন খাগকান্দা ইউনিয়নের ৫নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার লোকমান হোসেন। অপর পক্ষের নেতৃত্ব দেন এই ওয়ার্ড থেকে আগামী ইউপি নির্বাচনে সম্ভাব্য মেম্বার প্রার্থী জুলহাস মিয়া।

সকাল ৯টা হতে দুপুর পর্যন্ত সংঘর্ষের ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে।তাদের মধ্যে আবুল হোসেন ও নাঈম নামে দুইজনকে টেঁটাবিদ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকী আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ইউপি সদস্য লোকমান হোসেন জানান, জুলহাস মিয়ার লোকজন সকালে তার পক্ষের অন্তত ১২টি বাড়িতে ও একটি দোকানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে। তার পক্ষের অন্তত ২০ ব্যক্তিকে আহত হয়ছে।

অপরদিকে জুলহাস মিয়া এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, লোকমান মেম্বার এলাকার ত্রাস। তিনি এবং তার লোকজন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দেশীয় ধারালো অস্ত্রশস্ত্র তার পক্ষের লোকজনদের উপর ও তাদের বাড়িঘরে হামলা চালায়।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।