স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বার্লিনে করোনা বিরোধী মিছিল থেকে গ্রেপ্তার ৩০০

প্রকাশিত: ১১:৩৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০২০ | আপডেট: ১১:৩৩:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ, বার্লিন।করোনাভাইরাস মহামারি এখনও শেষ না হলেও এর জ্বালায় অতিষ্ঠ হয়ে স্বাস্থ্যবিধি-বিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়েছে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে। শনিবার জার্মান রাজধানী বার্লিনে এধরনের বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন অন্তত ৩৮ হাজার মানুষ। এর মধ্যে কিছু কিছু জায়গায় সহিংসতার ঘটনাও ঘটেছে। স্বাস্থ্যবিধি না মানায় শহরটিতে অন্তত ৩০০ বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

বার্লিন পুলিশ এক টুইটে জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীরা মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব বিধি না মানায় তাদের গ্রেফতার করা ছাড়া পুলিশের সামনে আর কোনও পথ ছিল না।করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে বার্লিন প্রশাসন প্রথমে এ বিক্ষোভের অনুমতি দেয়নি। পরে সেখানকার একটি আঞ্চলিক আদালত ওই নিষেধাজ্ঞা বাতিল করে বিক্ষোভের অনুমতি দেন।

বার্লিনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আন্দ্রেস জিসেল জানিয়েছেন, শহরের ব্রান্ডেনবার্গ গেটের কাছে কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী সমবেত হয়েছিলেন। সেখান থেকে পুলিশের দিকে বোতল ও পাথর নিক্ষেপ করা হয়। পরে পুলিশ প্রায় ২০০ বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করেছে। এসময় অন্তত সাত পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

এদিকে, ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে শনিবার স্বাস্থ্যসুরক্ষা নির্দেশনার বিরোধিতায় সমাবেশ হয়েছে। এতে অন্তত ২০০ জন মাস্ক-বিরোধী বিক্ষোভকারী অংশ নেন। এসময় তারা ‘স্বাস্থ্যের একনায়কতন্ত্রকে না’, ‘আমাদের শিশুদের শ্বাস নিতে দিন’ এ ধরনের স্লোগান দেন।

যুক্তরাজ্যে করোনায় ৪০ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি হলেও এ মহামারিকে গুজব মন্তব্য করে স্বাস্থ্য বিষয়ক সবধরনের বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার দাবি জানিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। এদিন লন্ডনের ট্রাফালগার স্কয়ারে এ দাবিতে সমবেত হয়েছিলেন কয়েকশ’ বিক্ষোভকারী।

একই দাবিতে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা এবং সুইজারল্যান্ডের জুরিখেও