হোয়াইক্যংয়ে বিধবা নারী ও তার মাদ্রাসা পড়ুয়া কিশোরীর উপর সন্ত্রাসীদের হামলা(ভিডিও)

প্রকাশিত: ৬:৩৬ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০২০ | আপডেট: ২:০২:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক:টেকনাফের হোয়াইক্যং তেচ্ছিব্রীজ বাঘঘোনা এলাকায় জায়গা জমিনের জেরধরে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে এক বিধবা নারী ও তার কয়েকজন যুবতী মেয়েদের উপর হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করেছে। ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায়,তার নিজস্ব জমিন সন্ত্রাসীরা দখলে নেয়ার চেষ্টা করতেছে অনেক দিন ধরে। সামাজিক বিচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সন্ত্রাসীরা জমিন দখলে নিতে না পারায়, তাদের উপর ক্ষুদ্ধ হয়ে বিধবা নারীর যুবতী মেয়েদের শ্লীলতাহানি করার চেষ্টা করেছে সন্ত্রাসীরা। মেয়েরদের ইজ্জত রক্ষার্তে বিধবা মহিলা সন্ত্রাসীদের বারণ করতে চাইলে, সন্ত্রাসীদল অতিক্ষুদ্ধ হয়ে বিধবা মহিলা, তার ছেলে ইবরাহীম ও যুবতী মেয়েদের উপর মধ্যযুগীয় নির্যাতন করেছে বলে জানান।একি এলাকার বাসিন্দা শাহ আলম এবং মো:আলমের নেতৃত্ব বিধবা মহিলা সহ তার যুবতী মেয়েদের উপর এমন সন্ত্রাসী নির্যাতন চালায় বলে জানান ভুক্তভোগী পরিবার।

নির্যাতনকারী সন্ত্রাসীরা হলেন,ভুলুমিয়ার পুত্র লালু,বাদশা মিয়ার পূত্র জাহাঙ্গীর, শামশুল আলম,জানে আলম,আবছার, বাদশা সহ সকলে বিধবা পরিবারের উপর বর্বরতার নির্যাতান চালায়। ঘটনার বিষয়ে শাহ আলমের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে জানা যায়, তিনি বলেন আমি একজন এলাকার সর্দার এবং আমার মানহানী করার জন্য একটি চক্রান্ত করা হচ্ছে, এবং আমি ঐ ঘটনার ব্যাপারে কিছুই জানিনা। এব্যাপারে হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাজমুলের কাছে জানতে চাইলে, তিনি বলেন,অভিযোগ পেলে অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিবেন।