বলিউডের ‘হোম ডেলিভারি’, সাত-সাতটা বিগ বাজেট হিন্দি ছবি আসছে শুধুমাত্র অনলাইনে!

প্রকাশিত: ১১:১৬ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০ | আপডেট: ১১:১৬:অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

লন্ডন টাইমস ডিজিটাল, বিনোদন।অনলাইনে আসছে একগুচ্ছ হিন্দি ছবি।হটস্টার প্লাস ডিজনিতে সাবস্ক্রিপশন করিয়েছেন? না করালে করিয়ে নিন। আসছে সাত-সাতটা বিগবাজেট হিন্দি ছবি, তাও আবার আনকোরা। আর সব ক’টাই দেখা যাবে অনলাইনে, হটস্টারে।

মার্চ থেকেই বন্ধ প্রেক্ষাগৃহ। টলি-বলি দুই জায়গাতেই শুটিং শুরু হলেও জুনের শেষে এসেও খোলেনি সিনেমা হল।আর খুলবেই বা কী করে? দিন দিন যে বেড়েই চলেছে সংক্রমণ। কত দিন আর অপেক্ষা করা যায়? তাই অগত্যা বিগ-বি’রই  পিছুনিলেনঅক্ষয়-আলিয়ারা।

অমিতাভ বচ্চন, আয়ুষ্মান খুরানা অভিনীত ‘গুলাবো সিতাবো’ অনলাইনে মুক্তি পেয়েছে কিছু দিন আগেই। এ বার অক্ষয়-অজয়রাও হাঁটতে চলেছেন একই রাস্তায়। প্রেস কনফারেন্স হবে জুমে। বাড়িতে গা এলিয়ে আপনিও দেখে নিতে পারবেন আপনার প্রিয় তারকাকে।

লক্ষ্মী বম্ব: এই ছবি নিয়ে প্রথম থেকেই নেটাগরিকদের মধ্যে হাইপ রয়েছে। অক্ষয় নিজেও চেয়েছিলেন ছবিটি বড় পর্দায় মুক্তি পাক। কিন্তুএই‘নিউ নর্মাল’-এ তা সম্ভব নয়। তাই কিয়ারা-অক্ষয়ের এই ছবি আপনি দেখতে পারবেন অনলাইনে। অভিনয় জীবনে প্রথম বার এমনটা হচ্ছে অক্ষয়ের সঙ্গে। উচ্ছ্বসিত তিনি। বললেন, “ছবিটি আমার খুব কাছের। এতে হরর, হিউমার দুই-ই রয়েছে। অস্থির এই সময়ে এই ছবি নতুন বার্তা দেবে।”

সড়ক : এই ছবির মধ্যে দিয়েই বেশ অনেক বছর পর পরিচালনায় ফিরছেন মহেশ ভট্ট। মুখ্য ভূমিকায় আলিয়া এবং সঞ্জয়। সুশান্তের মৃত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়ায় সবচেয়ে বেশি ট্রোলড হয়েছেন আলিয়া এবং তাঁর বাবা। সে নিয়ে কোনও মন্তব্য না করলেও ছবির অনলাইন মুক্তি নিয়ে মুখ খুলেছেন আলিয়া ভট্ট। তিনি বলেন, “প্রথমবার বাবার সঙ্গে কাজ করছি। স্বপ্ন সত্যি হচ্ছে আমার।”

ভুজ, দ্য প্রাইড অব ইন্ডিয়া: ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ নিয়ে এই ছবি। রয়েছেন অজয় দেবগণ, সোনাক্ষিসিংহ এবং সঞ্জয় দত্ত।

দিল বেচারা: সুশান্ত সিংহ রাজপুতের শেষ ছবি। রয়েছেন বাঙালি অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ও। আগামী ২৪ জুলাই হটস্টারে মুক্তি পাবে এই ছবি।

এ ছাড়াও অভিষেক বচ্চন অভিনীত ‘দ্য বিগ বুল’ এবং কুনাল খেমু অভিনীত ‘লুটকেস’-ও মুক্তি পাবে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মেই।

তবে এরই মধ্যে সিঁদুরে মেঘ দেখছেন আইনক্স-পিভিআর সমেত বিভিন্ন হলের মালিকরা। ‘বিগ বাজেট’ ছবিগুলোও যদি ডিজিটালি মুক্তি পায় তবে সিনেমার ভবিষ্যৎ কি অনলাইনেই আটকে যাবে? ভাবাচ্ছে তাঁদের। এই মন্দার বাজারে তা হলে তো কাজ হারাবেন বহু মানুষ। সিঙ্গল স্ক্রিন হল মালিকদেরও কপালে ভাঁজ। কোথা থেকে কর্মচারীদের মাইনে জোগাবেন, তা নিয়ে চিন্তিত তাঁরা।