যৌন নিপীড়নের দায়ে সাবেক কনজারভেটিভ এমপি চার্লি এলফিকের দুই বছরের জেল

প্রকাশিত: ৯:২১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০ | আপডেট: ১০:৩৩:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০

লন্ডন, লন্ডন টাইমস নিউজ।কনজারভেটিভ দলের সাবেক এমপি চার্লি এলপিককে দুজন মহিলাকে যৌন নিপীড়নের জন্য দুই বছরের জেল দিয়েছেন আদালত। চার্লি এলফিক ডোবারের প্রাক্তন এমপি এবং তার বয়স ৪৯ বলে জানা গেছে। য়াদালতে তিনি তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করেন।কারাগারে যাওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেতিনি আপিল করবেন বলে সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গেছে।

কিন্তু আদালত বলেছেন, চার্লি এলফিক আদালতে মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছেন, তিনি মিথ্যা বলছেন, তারা(অভিযোগকারীরা) সত্য বলছে। এমনকি তিনি তার স্ত্রী ও জুরিদের কাছেও মিথ্যা কথা বলেছেন।

তবে তার স্ত্রী বর্তমান ডোভারের এমপি  নাতালির সাথে তার বিবাহ বন্ধন শেষ হয়ে যায় যখন চার্লি দোষী সাব্যস্থ হয়েছিলেন। তারপরেও তিনি ও চার্লির মতো বলছেন, তিনি ন্যায় বিচার পাননি এবং সেজন্য তিনি চার্লির আপিলের সমর্থন করবেন।

তার বিরুদ্ধে বিস্তর যৌন নিপীড়নের অভিযোগ। প্রথম ভিক্টিমকে ২০০৭ সালে তার বাড়িতে তিনি চেপে ধরেছিলেন, সোফায় চাপিয়ে ধরে তার স্তন চেপে ধরেছিলেন, চুমু দেয়ার চেষ্টা করেছিলেন যাতে অভিযুক্ত এর পরে কোন পুরুষের কাছাকাছি থাকার ব্যাপারে সতর্ক এমন ভাবে হয়েছিলেন, যা তার জীবনে স্থায়ী প্রভাব ফেলেছিলো বলে উল্লেখ করেন।

দ্বিতীয় ভিক্টিম ২০১৬ সালে তারই অফিস সহকারি ২০ বছর বয়সী। যে নিপীড়নকে তিনি তার আত্মমর্যাদা চুরি বলে মন্তব্য করেছেন। তাকে চার্লি দ্বিতীয়বার আক্রমণ করেছিলেন যেখানে তিনি ঐ নারীর উরুর ভিতরের অংশেও হাত ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন।