ইমরানকে হটাতে তিন পর্যায়ে আন্দোলনের ঘোষণা

প্রকাশিত: ১২:১৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০ | আপডেট: ১২:১৭:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০

লন্ডন টাইমস নিউজ।পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পদত্যাগের দাবিতে দেশটির মূল বিরোধীদলগুলো জোট গঠন করেছে। এ জোটের নাম দেওয়া হয়েছে পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট (পিডিএম)। তারা ইমরান সরকারের পদত্যাগের দাবিতে তিন পর্যায়ের আন্দোলনের রূপরেখা ঘোষণা করেছে। গতকাল রোববার বিরোধী দলগুলোর সম্মেলনের পর ইমরান-বিরোধী আন্দোলনের এই ঘোষণা আসে। খবর ডনের।

রোববারের সম্মেলনের পর ব্রিফিং করা হয়। পিপিপির চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো এতে বক্তা করেন। আর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করেন জমিয়তে উলেমা-ই-ইসলামের (জেইউআই-এফ) প্রধান মাওলানা ফজলুর রেহমান। এতে জানানো হয়, আগামী মাসে পাকিস্তানজুড়ে সমাবেশ, ডিসেম্বর মাসে প্রতিবাদ মিছিল এবং আগামী জানুয়ারি মাসে রাজধানী অভিমুখে লংমার্চ করা হবে।

আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়ে নিতে বিরোধীদলগুলোর সমন্বয়ে পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট (পিডিএম) নামে একটি জোট ঘোষণা করা হয়। এ ছাড়া ২৬ দফা দাবি তুলে ধরা হয়। এর মধ্যে রয়েছে ‘রাজনীতিতে কর্তৃত্ববাদী শক্তির নাক গলানো বন্ধ করা, নির্বাচনী ব্যবস্থার সংস্কার শেষে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠান, নির্বাচনে সশস্ত্র বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার হস্তক্ষেপ বন্ধ, রাজনৈতিক বন্দীদের মুক্তি, সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার, চীন-পাকিস্তান ইকোনমিক করিডর প্রকল্পকে গতিশীল করা।’
মাওলানা ফজলুর জানান, আন্দোলন বেগবান করার জন্য শিগগিরই একটি কমিটি গঠন করা হবে। তিনি বলেন, ‘কর্তৃত্ববাদী শক্তি ভোট ডাকাতির মধ্যে দিয়ে বর্তমান সরকারকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। রাজনীতিতে এ শক্তির ক্রমবর্ধমান হস্তক্ষেপে আমরা শঙ্কিত। আমরা মনে করি, এটা দেশের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি।এ সময় পিপিপির চেয়ারম্যান বিলওয়াল ভুট্টো, মুসলিম লিগের সভাপতি শাহবাজ শরিফ, নওয়াজ শরিফের মেয়ে ও মুসলিম লিগের সহসভাপতি মরিয়ম নওয়াজসহ বিভিন্ন দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বিরোধী দলগুলোর সম্মেলনের মূল আয়োজক ছিল পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)। এতে অংশ নেন পিপিপির এক সময়ের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান মুসলিম লিগের (পিএমএল-এন) নেতা ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফও। লন্ডনে থাকা নওয়াজ ওই সম্মেলনে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়ে বক্তব্য দেন।